Management 3rd Paper degree 2nd year Final Suggestion


ব্যবস্থাপনা তৃতীয় পত্র।
বিষয় কোড: ১২২৬০১ — বিষয়: ব্যবসায় আইনগত পরিবেশ

ব্যবস্থাপনা ৩য় পত্র সাজেশন ২০২৪

ক-বিভাগ

(যে কোন ১০ টি প্রশ্নের উত্তর দাও)

অতি সংক্ষিপ্ত প্রশ্নাবলি:

১ . স্বীকৃতি কী?
উত্তর: যার কাছে প্রস্তাবটি উত্থাপিত হয়েছে, সে উক্ত প্রস্তাবে সম্মতি দিলে প্রস্তাবটি স্কীকৃত হলো বলে ধরা হয়।

২. প্রতিদান কাকে বলে?
উত্তর: প্রতিশ্রুতির বিনিময়ে যা কিছু পাওয়া যায় তাকেই প্রতিদান বলে।

৩. প্রতিনিধি কে?
উত্তর: অন্যের পক্ষ হয়ে যে ব্যক্তি কাজ করে তাকে প্রতিনিধি বলে এবং কাজ করাকে প্রতিনিধিত্ব বলে ।

৪. মুখ্য শর্ত কী?
উত্তর: যে শর্ত চুক্তির আসল উদ্দেশ্যের জন্য অপরিহার্য তাকে মুখ্য শর্ত বলে ।

৫. অনির্দিষ্ট পণ্য কাকে বলে?
উত্তর: পণ্য বিক্রয় চুক্তি সম্পাদনকালে যে পণ্য শনাক্ত করা হয় নি বা স্বীকৃত হয় না তবে বর্ণনা বা অন্যকোনো উপায়ে বিক্রয় হয়েছে তাকে অনির্দিষ্ট পণ্য বলে ।

৬. পণ্য অর্পণ কী?
উত্তর: স্বেচ্ছায় এক ব্যক্তি কর্তৃক অপর ব্যক্তিকে পণ্যের দখল হস্তান্তর কে পণ্য অর্পণ বলা হয়।

৭. BIM এর পূর্ণরূপ কি?
উত্তর:-Bangladesh Institute of Mangement.

৮. WTO এর পূর্ণরূপ লিখ।
উত্তর:- World Trade Organization.

৯. বাতিল চুক্তি কী?
উত্তর:- চুক্তি আইনের এক বা একাধিক পক্ষের ইচ্ছানুসারে বলবৎযোগ্য হয় কিন্তু অপর পক্ষের ইচ্ছানুসারে বলবৎযোগ্য হয় না, তাকে বাতিলযোগ্য চুক্তি বলে।

১০. অব্যক্ত চুক্তি কী?
উত্তর:- কোনো চুক্তি যখন চুক্তির পক্ষগুলোর মধ্যে কোনো আলাপ-আলোচনা ছাড়াই সম্পাদিত হয় তখন তাকে অব্যক্ত চুক্তি বলে।

১১. সম্মতি কী?
উত্তর:- কোনো চুক্তিকে আইনত বলবৎযোগ্য করতে হলে চুক্তি পক্ষসমূহকে কোনো কাজ করা বা বিরত থাকার বিষয়ে একমত হওয়াকে সায় বা সম্মতি বলে।

১২. প্রস্তাব বলতে কী বুঝ?
উত্তর:- চুক্তিতে আবদ্ধ হবার উদ্দেশ্যে কোনো ব্যক্তি কর্তৃক অপর কোনো ব্যক্তির নিকট কিছু করা না করার ইচ্ছা প্রকাশকে প্রস্তাব বলে।

১৩. প্রতিদান কী?
উত্তর:- কোনো প্রতিশ্রুতির বিনিময়ে যা কিছু পাওয়া যায় এবং দেওয়া হয় তাকে প্রতিদান বলে ।

১৪. অব্যক্ত প্রস্তাব কী?
উত্তর:- কোনো ব্যক্তির আচরণ থেকে যখন কোনো প্রস্তাব বুঝা যায় তাকে অব্যক্ত প্রস্তাব বলে ।

১৫. অতীত প্রতিদান কী?
উত্তর:- অতীতে সম্পাদিত কোনো কাজের জন্য বা সেবার জন্য বর্তমানে যে মূল্য বা প্রতিদানের প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয় তাকে অতীত প্রতিদান বলে।

১৬. দুটি জনস্বার্থ বিরোধী চুক্তির নাম লিখ।
উত্তর:- দুটি জনস্বার্থ বিরোধী চুক্তির নাম হলো: ১) ব্যক্তিগত স্বাধীনতার প্রতিবন্ধকতা, ২)পিতামাতার অধিকারের বাধা সৃষ্টিকারী সম্মতি।

১৭. চুক্তি আইনের সেচ্ছাসায় বলতে কী বুঝ?
উত্তর:- মিথ্যে বর্ণনা বল প্রয়োগ, অনুচিত প্রভাব প্রতারণা বা ভুলের বশবর্তী না হয়ে সায় প্রদত্ত হলে তাকে সেচ্ছাসায় বলে ।

১৮. ক্রেতা সাবাধান নীতি কী?
উত্তর:- ক্রেতা সাবধান নীতি হলো কোনো পণ্য বা দ্রব্য ক্রয়ের সময় ক্রেতা চূড়ান্ত সতর্কতা অবলম্বন করে । দ্রব্যটির গুণাগুণ, বৈশিষ্ট্য এবং দোষত্রুটি ভাল করে পরীক্ষা করে নিবে।

১৯. উপ-চুক্তি বলতে কী বুঝ?
উত্তর:- যেক্ষেত্রে চুক্তি আইন অনুসারে কোনো চুক্তির উদ্ভব না হয়ে চুক্তি ন্যায় সম্পর্কের সৃষ্টি হয় তাকে উপ-চুক্তি বলে ।

২০. চুক্তি পালন বলতে কী বুঝ?
উত্তর:- চুক্তিভঙ্গ পক্ষগুলোর কার্যসম্পাদন বা কাজ থেকে বিরত থাকাকে চুক্তি পালন বলে।

২১. চুক্তিভঙ্গ কি?
উত্তর:- প্রতিশ্রুতিদাতা প্রতিশ্রুতি পালন না করলে এবং প্রতিশ্রুতি গ্রহীতা চুক্তি পালন সম্পর্কে উদাসীনতা বা অক্ষমতা প্রকাশ করলে তখন তাকে চুক্তিভঙ্গ বলে।

২২. চুক্তিভঙ্গ কত প্রকার ও কী কী?
উত্তর:-দুই প্রকার। ক) প্রকৃত চুক্তি ভঙ্গ ও খ) পূর্বাহ্নে চুক্তি ভঙ্গ ।

২৩. পূবাহ্নে চুক্তিভঙ্গ কী?
উত্তর:-চুক্তি পালননের সময় উপস্থিত হওয়ার আগেই যখন প্রতিশ্রুতিদাতা ব্যর্থহীনভাবে অনিচ্ছা প্রকাশের বা চুক্তি পালনের দায় প্রত্যাখ্যান করে যে, প্রতিশ্রুতিদাতা চুক্তি অনুযায়ী কাজ করবে না, তখন পূর্বাহ্নে চুক্তিভঙ্গ বলে।

২৪. ১৯৬৫ সালের কারখানা আইন অনুসারে কারখানা এর সংজ্ঞা দাও।
উত্তর:- ১৯৬৫ সালের কারখানা আইনে ২(চ) ধারায় বলা হয়েছে যে, সীমানাসহ এমন একটি ভবনকে বুঝায় যেখানে ১০ জন বা তার অধিক সংখ্যক শ্রমিক কাজ করছে বা পূর্ববর্তী ১২ মাসের মধ্যে যেকোনো দিন কাজ করেছিল ।

২৫. বাংলাদেশের শ্রম আইন কত সালের?
উত্তর:- ২০০৬ সালের।

২৬. প্রসূতি কল্যাণ কী?
উত্তর:- কোনো মহিলা শ্রমিককে তার প্রসূতি হওয়ার কারণে প্রদেয় মজুরীসহ ছুটি।

২৭. পোষ্য কী?
উত্তর:- যে ব্যক্তি অন্য কোনো ব্যক্তির উপর নির্ভরশীল তাকে পোষ্য বলে ।

২৮. আইনগত সম্পর্ক কী?
উত্তর:- আইনগত সম্পর্ক বলতে উভয় পক্ষের মধ্যে দায় ও অধিকারের সম্পর্কে বুঝায়।

২৯. ক্ষুদ্র শিল্পের সংজ্ঞা দাও।
উত্তর:- যেসব প্রতিষ্ঠানে ৫০ জনের কম শ্রমিক কাজ করে এবং স্থায়ী পুজি বিনিয়োগের পরিমাণ ১০ কোটি টাকার কম তাকেই ক্ষুদ্র শিল্প বলে ।

৩০. নামমাত্র খেসারত কী?
উত্তর:- যেক্ষেত্রে চুক্তি ভঙ্গের আবেদনকারীর পক্ষে কোনো ক্ষতি হয় নি অথবা ক্ষতি হলেও সামান্য হয়েছে বলে আদাতল যে সামান্য ক্ষতিপূরণ প্রদানের নির্দেশ দেয় তাকে নামমাত্র খেসারত বলে।

৩১. গচ্ছিত প্রদান কী?
উত্তর:- উদ্দেশ্য পূরণ হলে তা অর্পনকারীকে ফেরৎ দেয়া হবে বা তার নির্দেশমত পরবর্তী কার্যব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে এ মর্মে কারও নিকট কোনো দ্রব্য সামগ্রী রাখাকে গচ্ছিত প্রধান বলে।

৩২. গচ্ছিত গ্রহীতা বলতে কী বুঝ?
উত্তর:- যার নিকট পণ্য অর্পিত হয় তাকে গচ্ছিত গ্রহিতা বলে ।

৩৩. উপ-প্রতিনিধি কী?
উত্তর:- উপ-প্রতিনিধি হলো এমন কোনো ব্যক্তি যে প্রতিনিধিত্বের কাজে মূল প্রতিনিধি কর্তৃক নিযুক্ত হয় এবং তার নিয়ন্ত্রাধীনে কাজ করে।

৩৪. কে প্রতিনিধি নিয়োগ করতে পারে?
উত্তর:-দেশের প্রচলিত আইন অনুসারে সাবালক এবং সুস্থ মস্তিস্ক সম্পন্ন যেকোনো ব্যক্তি প্রতিনিধি নিয়োগ করতে পারে।

৩৫. প্রতিনিধির কাজ কী?
উত্তর:- প্রতিনিধির কাজ হলো মুখ্য ব্যক্তির সাথে তৃতীয় পক্ষের চুক্তিগত সম্পর্ক স্থাপনে সহায়তা করা।

৩৬. CBA এর পূর্ণরূপ লিখ।
উত্তর:-Combined Bargaining Agent.

৩৭. ক্রেতা কে?
উত্তর:- যে ব্যক্তি পণ্য ক্রয় করে বা ক্রয়ের অঙ্গীকার করে তাকে ক্রেতা বলে ।

৩৮. বিক্রেতা কে?
উত্তর:- যে ব্যক্তি পণ্য বিক্রয় করে অথবা বিক্রয় করতে সম্মত হয় তাকে বিক্রেতা বলে।

৩৯. স্বত্ব কী?
উত্তর:- পণ্যের উপর সাধারণ অধিকারকেই স্বত্ব বলে।

৪০. নির্দিষ্ট পণ্য কী?
উত্তর:- চুক্তি করার সময় যে পণ্য সনাক্ত করা যায় এবং উভয়পক্ষই পণ্যের পরিচিত সুষ্পষ্টভাবে বুঝতে পারে, তাকে নির্দিষ্ট পণ্য বলে।

৪১. বায়না কী?
উত্তর:- কোনো নির্দিষ্ট চুক্তির বিপক্ষে নির্ধারিত মূল্যের একটি অংশ ক্রেতা কর্তৃক বিক্রেতার আগাম হিসেবে প্রদান করাকে বায়না বলে ।

৪২. প্রতীকমূলক অর্পণ কী?
উত্তর:- বিক্রেতা কর্তৃক ক্রেতা বা তার প্রতিনিধিকে সাংকেতিক চিহ্নগত অৰ্পন বা প্রতীক অর্পনকে প্রতীকমূলক অর্পন বলে।

৪৩. নূন্যতম মজুরি কী?
উত্তর:- দেশের আর্থিক অবস্থা, বাজারের হালচাল প্রচলিত আইন অনুযায়ী যে পরিমাণ অর্থের কম একজন শ্রমিককে দেয়া যায় না তাকে নূন্যতম মজুরি বলে।

৪৪. তালাবদ্ধ কী?
উত্তর:- কোনো মালিক কর্তৃক কোনো কর্মস্থান অথবা এর কোনো অংশ বন্ধ করে দেয়া অথবা সম্পূর্ণ বা আংশিকভাবে কাজ স্থগিত রাখা অথবা কোনো মালিক কর্তৃক চূড়ান্তভাবে শর্তসাপেক্ষে তার যে কোনো সংখ্যক শ্রমিককে চাকরিতে নিয়োজিত রাখা অস্বীকৃতিকে তালাবদ্ধকরণ বলে ।

Management 3rd Paper suggestion

ডিগ্রি ২য় বর্ষ ব্যবস্থাপনা ৩য় পত্র সাজেশন ২০২৪

খ-বিভাগ

→ (যেকোনো ৫টি প্রশ্নের উত্তর দাও)

১. “আইনের দ্বারা বলবৎযোগ্য সম্মতিই চুক্তি”- ব্যাখ্যা কর।
২. অতীত প্রতিদান কি বৈধ প্রতিদান? ব্যাখ্যা কর।
৩. মৌনতা কি প্রতারণা হতে পারে ? যদি হয়, তবে কখন?
৪. ক্ষতিপূরণের চুক্তি ও জামিনের চুক্তির মধ্যে পার্থক্য কী?
৫. পণ্য বিক্রয় চুক্তির শর্তসমূহ কী?
৬. চুক্তির পরিসমাপ্তি বলতে কী বুঝ?
৭. ১৯৬৫ সালের কারখানা আইন অনুসারে কোন কোন ব্যক্তিদের শ্রমিক হিসাবে গণ্য করা হয় না?
৮. প্রতিদান কাকে বলে?
৯. মজুরির সংজ্ঞা দাও ।
১০. প্রস্তাব জ্ঞাপন কখন সম্পূর্ণ হয়?
১১. অতীত প্রতিদান বলতে কী বুঝ?
১২. ঘটনা সাপেক্ষ চুক্তি বলতে কী বুঝ?
১৩. শ্রমিক সংঘ বলতে কী বুঝ?
১৪. প্রতিদান পর্যাপ্ত না হলেও চলে -ব্যাখ্যা কর ।
১৫. প্রতিনিধি ও ভৃত্যের মধ্যে পার্থক্য লিখ।
১৬. প্রস্তাব ও স্বীকৃতির মধ্যে পার্থক্য লিখ।
১৭. কর্মচুত্যি ও বরখাস্তকরণ এর মধ্যে পার্থক্য কি?
১৮. শ্রমিক ছাটাই সংক্রান্ত বিধানসমূহ উল্লেখ কর।
১৯. প্রতারণা ও মিথ্যা বর্ণনার মধ্যে পার্থক্য দেখাও।
২০. চুক্তির সংজ্ঞা দাও। চুক্তি ও সম্মতির মধ্যে পার্থক্য লিখ।
২১. প্রতিনিধির সংজ্ঞা দাও । প্রতিনিধিত্ব সৃষ্টির বিভিন্ন পদ্ধতি আলোচনা কর।
২২. বাজি ধরার চুক্তি কাকে বলে? বাজি ও বিমা চুক্তির মধ্যে পার্থক্য লিখ।
২৩. চুক্তি আইন কী? বল প্রয়োগ ও অনুচিত প্রভাবের মধ্যে পার্থক্য লিখ।
২৪. শ্রমিক সংঘ নিবন্ধনের প্রয়োজনীয় পদক্ষেপসমূহ আলোচনা কর।
২৫. স্থায়ী শ্রমিক কে? ১৯৬৫ সালের শ্রমিক নিয়োগ স্থায়ী আদেশ আইন অনুসারে চাকরির শর্তাবলি বর্ণনা কর।
২৬. চুক্তি পালন বলতে কী বুঝ? যে সকল চুক্তি পালনের প্রয়োজন নেই সেগুলো বর্ণনা কর ।

গ-বিভাগ

(যেকোনো ৫টি প্রশ্নের উত্তর দাও)

১. প্রস্তাব বলতে কী বুঝ? বৈধ প্রস্তাবের আইনগত নিয়ামাবলি ব্যাখ্যা কর।
২. চুক্তি ভঙ্গ বলতে কী বুঝায়? চুক্তি ভঙ্গের জন্য ক্ষতিগ্রস্ত পক্ষের যে সমস্ত প্রতিকার রয়েছে সেগুলো আলোচনা কর।
৩. জামিনের চুক্তি বলতে কী বুঝ? কখন একজন জামিনদার তার দায় হতে মুক্ত হয়?
৪. একজন মুখ্য ব্যক্তির প্রতি প্রতিনিধির কর্তব্যসমূহ বর্ণনা কর।
৫. ব্যতিক্রমসহ ক্রেতা সাবধান নীতি আলোচনা কর ।
৬. ১৯৬৫ সালের কারখানা আইন অনুসারে ‘শ্রমিক’ এর সংজ্ঞা দাও। ১৯৬৫ সালের কারখানার আইনে শ্রমিকের নিরাপত্তা সংক্রান্ত যে সকল বিধান রয়েছে সেগুলো উল্লেখ কর।
৭. প্রতিনিধিত্ব কী? বিভিন্ন প্রকার প্রতিনিধি সম্পর্কে আলোচনা কর।
৮. ১৯৬৯ সালে শিল্প সম্পর্ক অধ্যাদেশ শিল্প বিরোধ মিমাংসার যে সকল পদ্ধতির উল্লেখ করা হয়েছে তা বর্ণনা কর।
৯. বৈধ চুক্তি বলতে কী বুঝায়? চুক্তির অপরিহার্য উপাদানসমূহের বর্ণনা কর।
১০. প্রস্তাব কিভাবে অর্পণ করা যায়? বিনা প্রতিদানে চুক্তি হয় না- ব্যাখ্যা কর ।
১১. চুক্তি আইন অনুসারে প্রতিদান সম্পর্কিত নিয়মাবলি উল্লেখ কর।
১২. চুক্তি সম্পাদনের যোগ্যতা বলতে কী বুঝ? চুক্তির পরিসমাপ্তির বিভিন্ন উপায় বর্ণনা কর।
১৩. গচ্ছিত দাতার অধিকার বলতে কী বুঝায়? গচ্ছিত গ্রহীতার দায়িত্ব ও কর্তব্য আলোচনা কর।
১৪. ক্রেতা সাবধান নীতি কী? কখন ও কিভাবে মুখ্য শর্ত গৌণ শর্তে পরিণত হয়?
১৫. অপরিশোধিত বিক্রেতা কী? অপরিশোধিত বিক্রেতার অধিকারসমূহ বর্ণনা কর ।
১৬. কোনো পণ্য বিক্রেতা তার নিজ অপেক্ষা পণ্যের উন্নতর স্বত্ব এর ক্রেতাকে অর্পণ করতে পারে না -ব্যতিক্রমসহ নিয়মটি লিখ।
১৭. বিক্রয় ও বিক্রয় সম্মতির পার্থক্য লিখ । কিভাবে পণ্যের মালিকানা বিক্রেতার নিকট থেকে ক্রেতার নিকট হস্তান্তরিত হয়?
১৮. ১৯৬৫ সালের কারখানা আইন অনুসারে কারখানা এর সংজ্ঞা দাও এবং নারী শ্রমিক নিয়োগ সংক্রান্ত ১৯৬৫ সালের কারখানা আইনের বিধানসমূহ কী কী?
১৯. যৌথ দরকষাকষি প্রতিনিধির অধিকার, ক্ষমতা ও দায়িত্ব আলোচনা কর ।
২০. শিল্প বিরোধ কী? যৌথ দরকষাকষি প্রতিনিধি নিয়োগ ও নির্বাচন সংক্রান্ত বিধানাবলি আলোচনা কর।
২১. প্রতিনিধির ক্ষমতাসমূহ বর্ণনা কর । উপ-প্রতিনিধি ও সহ প্রতিনিধির মধ্যে পার্থক্য দেখাও ৷
২২. শ্রমিক নিয়োগ (স্থায়ী আদেশ)আইন অনুসারে শ্রমিকদের কখন চাকরি বরখাস্ত করা যায়?
২৩. নাবালক কে? বাংলাদেশের আইন অনুযায়ী নাবালকের চুক্তি সম্পর্কে আইনের বিধানসমূহ আলোচনা কর।

Leave a Comment